১২:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৩০ কেজি বাড়তি ওজনের কারণে ভেঙে গেছে প্রেম, তিনি এখন ওজন কমাতে চান

Reporter Name
  • No Update : ১১:০২:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১ নভেম্বর ২০২৩
  • / 1109

প্রশ্ন: আমি একজন পুরুষ, বয়স ২৮ বছর। উচ্চতার তুলনায় আমার ওজন ৩০ কেজি বেশি। সাধারণত আমাকে মেয়েরা প্রেমিক হিসেবে পছন্দ করে না। তাই অনলাইনে ডেটিং অ্যাপে এক মেয়ের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক হয়। ১২ মাস প্রেমের পর আমাদের প্রথম বার্ষিকীতে প্রথম দেখা করতে যাই। তবে দেখা হওয়ার পর থেকে মেয়েটি আর সেভাবে যোগাযোগ করছে না। আমি বুঝে ফেলেছি ওজনই সমস্যা। প্রেম ভাঙার পর থেকে আমি ওজন কমানোর জন্য ইউটিউবে ভিডিও দেখে সেভাবে চলতে থাকি। কিন্তু নানা রকম সমস্যা হচ্ছে। যেসব খাবারের খেতে বলছে আর যেভাবে চলতে বলছে, সেগুলো খুব ব্যয়বহুল। আমি কোনো আয় করি না। তাই কম টাকায় গ্রামে বসে কীভাবে ওজন কমানো যাবে, এমন পরামর্শ চাই। নিজে সুস্থ থাকতে চাই।

মেঘদূত, দিনাজপুর

উত্তর: মেঘদূত, আপনার অতিরিক্ত ওজনের কারণে যদি এক বছরের প্রেম ভেঙে গিয়ে থাকে, তার মানে হলো আপনার ওই প্রেমে ভালোবাসা ছিল না। আর ভালোবাসা ছাড়া কোনো সম্পর্ক বেশি দিন টেকে না। কথাগুলো বললাম, কারণ, ভালোবাসা সুন্দর বা অসুন্দর, ধনী বা গরিব, ওজন কম বা বেশির ওপর নির্ভর করে না। যা–ই হোক মূল বিষয়টা হলো আপনার বাড়তি ৩০ কেজি ওজন কমানো। এই ওজন কমাতে আপনার জীবনযাপন করতে হবে নিয়মমাফিক। কোনো দামি খাবার না খেয়েও ওজন স্বাভাবিক পর্যায়ে আনা সম্ভব। এ জন্য প্রয়োজন শুধু আপনার অদম্য ইচ্ছা ও পরিবর্তিত জীবনযাপন। ওজন কমাতে আপনাকে যা করতে হবে—

১. কম ক্যালরিযুক্ত কিন্তু সুষম খাবার খেতে হবে। এর মানে হলো শরীরের চাহিদা অনুযায়ী সব কটি খাবার প্রতিদিন খেতে হবে।

২. তবে ওই খাবারগুলো একবারে বেশি না খেয়ে বারবার (তিন-চার ঘণ্টা পরপর) খেতে হবে। যাতে আপনার শরীরের প্রয়োজনীয় শক্তি-পুষ্টি মেলে। আবার অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকা যাবে না, এতে করে পরেরবার বেশি খিদে থাকায় বেশি খাওয়া হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন
গরুর মাংস খেয়েও যেভাবে ওজন কমানো যায়
৩. খাবারের ক্যালরি কমানোর জন্য রান্নায় তেল কম ব্যবহার করতে হবে। ডুবো তেলে ভাজা, বাইরের খাবার, পানীয়, মিষ্টিজাতীয় খাবার কিছুদিনের জন্য বাদ দিতে হবে।

৪. আপনার বাড়তি ওজনটা ঝরিয়ে ফেলতে প্রতিদিন ১ ঘণ্টা পছন্দমতো ব্যায়াম (দ্রুত হাঁটা, সাঁতার কাটা, জিম ইত্যাদি) করতে হবে। তবে একবারে পুরো সময় ব্যায়াম না করতে পারলে দুই বারে ভাগ করে ধীরে ধীরে সময় ও গতি বাড়াতে হবে।

৫. বেশি রাত জাগা বা দিনে ঘুমানো ওজন বাড়ার বড় কারণ। তাই রাতে কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা (যেমন রাত ১২টা থেকে সকাল ৬টা) ঘুমাতে হবে।

সাধারণ এই নিয়মের পাশাপাশি প্রত্যেকের ডায়েট চার্ট ভিন্ন ভিন্ন হয়। তার জন্য আপনাকে একজন পুষ্টিবিদের পরামর্শমতো সারা দিনের ডায়েট চার্ট তৈরি করে নিতে হবে। সেই চার্ট অনুযায়ী চললে ধীরে ধীরে ওজন কমতে থাকবে। মনে রাখবেন, আপনি ওজন কমাবেন নিজের সুস্থতার জন্য, অন্য কারও দৃষ্টিতে নিজেকে সুন্দর দেখানোর জন্য নয়। বাকিটা প্রকৃতির নিয়ম অনুযায়ী হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন

Please Share This Post in Your Social Media

Write Your Comment

About Author Information

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট | A Popular News Portal Of Bangladesh.

৩০ কেজি বাড়তি ওজনের কারণে ভেঙে গেছে প্রেম, তিনি এখন ওজন কমাতে চান

No Update : ১১:০২:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১ নভেম্বর ২০২৩

প্রশ্ন: আমি একজন পুরুষ, বয়স ২৮ বছর। উচ্চতার তুলনায় আমার ওজন ৩০ কেজি বেশি। সাধারণত আমাকে মেয়েরা প্রেমিক হিসেবে পছন্দ করে না। তাই অনলাইনে ডেটিং অ্যাপে এক মেয়ের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক হয়। ১২ মাস প্রেমের পর আমাদের প্রথম বার্ষিকীতে প্রথম দেখা করতে যাই। তবে দেখা হওয়ার পর থেকে মেয়েটি আর সেভাবে যোগাযোগ করছে না। আমি বুঝে ফেলেছি ওজনই সমস্যা। প্রেম ভাঙার পর থেকে আমি ওজন কমানোর জন্য ইউটিউবে ভিডিও দেখে সেভাবে চলতে থাকি। কিন্তু নানা রকম সমস্যা হচ্ছে। যেসব খাবারের খেতে বলছে আর যেভাবে চলতে বলছে, সেগুলো খুব ব্যয়বহুল। আমি কোনো আয় করি না। তাই কম টাকায় গ্রামে বসে কীভাবে ওজন কমানো যাবে, এমন পরামর্শ চাই। নিজে সুস্থ থাকতে চাই।

মেঘদূত, দিনাজপুর

উত্তর: মেঘদূত, আপনার অতিরিক্ত ওজনের কারণে যদি এক বছরের প্রেম ভেঙে গিয়ে থাকে, তার মানে হলো আপনার ওই প্রেমে ভালোবাসা ছিল না। আর ভালোবাসা ছাড়া কোনো সম্পর্ক বেশি দিন টেকে না। কথাগুলো বললাম, কারণ, ভালোবাসা সুন্দর বা অসুন্দর, ধনী বা গরিব, ওজন কম বা বেশির ওপর নির্ভর করে না। যা–ই হোক মূল বিষয়টা হলো আপনার বাড়তি ৩০ কেজি ওজন কমানো। এই ওজন কমাতে আপনার জীবনযাপন করতে হবে নিয়মমাফিক। কোনো দামি খাবার না খেয়েও ওজন স্বাভাবিক পর্যায়ে আনা সম্ভব। এ জন্য প্রয়োজন শুধু আপনার অদম্য ইচ্ছা ও পরিবর্তিত জীবনযাপন। ওজন কমাতে আপনাকে যা করতে হবে—

১. কম ক্যালরিযুক্ত কিন্তু সুষম খাবার খেতে হবে। এর মানে হলো শরীরের চাহিদা অনুযায়ী সব কটি খাবার প্রতিদিন খেতে হবে।

২. তবে ওই খাবারগুলো একবারে বেশি না খেয়ে বারবার (তিন-চার ঘণ্টা পরপর) খেতে হবে। যাতে আপনার শরীরের প্রয়োজনীয় শক্তি-পুষ্টি মেলে। আবার অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকা যাবে না, এতে করে পরেরবার বেশি খিদে থাকায় বেশি খাওয়া হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন
গরুর মাংস খেয়েও যেভাবে ওজন কমানো যায়
৩. খাবারের ক্যালরি কমানোর জন্য রান্নায় তেল কম ব্যবহার করতে হবে। ডুবো তেলে ভাজা, বাইরের খাবার, পানীয়, মিষ্টিজাতীয় খাবার কিছুদিনের জন্য বাদ দিতে হবে।

৪. আপনার বাড়তি ওজনটা ঝরিয়ে ফেলতে প্রতিদিন ১ ঘণ্টা পছন্দমতো ব্যায়াম (দ্রুত হাঁটা, সাঁতার কাটা, জিম ইত্যাদি) করতে হবে। তবে একবারে পুরো সময় ব্যায়াম না করতে পারলে দুই বারে ভাগ করে ধীরে ধীরে সময় ও গতি বাড়াতে হবে।

৫. বেশি রাত জাগা বা দিনে ঘুমানো ওজন বাড়ার বড় কারণ। তাই রাতে কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা (যেমন রাত ১২টা থেকে সকাল ৬টা) ঘুমাতে হবে।

সাধারণ এই নিয়মের পাশাপাশি প্রত্যেকের ডায়েট চার্ট ভিন্ন ভিন্ন হয়। তার জন্য আপনাকে একজন পুষ্টিবিদের পরামর্শমতো সারা দিনের ডায়েট চার্ট তৈরি করে নিতে হবে। সেই চার্ট অনুযায়ী চললে ধীরে ধীরে ওজন কমতে থাকবে। মনে রাখবেন, আপনি ওজন কমাবেন নিজের সুস্থতার জন্য, অন্য কারও দৃষ্টিতে নিজেকে সুন্দর দেখানোর জন্য নয়। বাকিটা প্রকৃতির নিয়ম অনুযায়ী হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন