০৩:৪০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রংপুরে গণতন্ত্র মঞ্চের মিছিলে পুলিশের বাধা

Reporter Name
  • No Update : ১২:০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ নভেম্বর ২০২৩
  • / 1060

অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে রংপুরে গণতন্ত্র মঞ্চের মিছিলে লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল চারটায় শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমানকে পুলিশ আটক করলেও বিক্ষুব্ধ নেতা–কর্মীদের চাপের মুখে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গণতন্ত্র মঞ্চের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ অভিযোগ করা হয়।

গণতন্ত্র মঞ্চ ও প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে গণতন্ত্র মঞ্চের রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলটি রংপুর শহরের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে। মিছিলটি রংপুর শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এলে পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। একপর্যায়ে লাঠিপেটা করে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়। এ সময় দলটির তিনজন কর্মী আহত হন।

তবে কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহ আলম লাঠিপেটার কথা অস্বীকার করে বলেন, মিছিলে পুলিশ বাধা দেয়। এরপর মিছিলকারীরা সেখান থেকে চলে যান।

গণতন্ত্র মঞ্চ রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন জেএসডি রংপুর জেলা শাখার সভাপতি আমিন উদ্দিন, জেএসডির মহানগর কমিটির সদস্য এ বি এম মশিউর রহমান, আবদুস সাদেক জিহাদী, নাগরিক ঐক্যের রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক শাহ মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সদস্যসচিব মোফাকখারুল মুন, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের রংপুর জেলার সমন্বয়ক চিনু কবির, দপ্তর সমন্বয়ক কনক রহমান প্রমুখ।

অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে রংপুরে গণতন্ত্র মঞ্চের মিছিলে লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল চারটায় শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমানকে পুলিশ আটক করলেও বিক্ষুব্ধ নেতা–কর্মীদের চাপের মুখে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গণতন্ত্র মঞ্চের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ অভিযোগ করা হয়।

গণতন্ত্র মঞ্চ ও প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে গণতন্ত্র মঞ্চের রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলটি রংপুর শহরের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে। মিছিলটি রংপুর শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এলে পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। একপর্যায়ে লাঠিপেটা করে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়। এ সময় দলটির তিনজন কর্মী আহত হন।

তবে কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহ আলম লাঠিপেটার কথা অস্বীকার করে বলেন, মিছিলে পুলিশ বাধা দেয়। এরপর মিছিলকারীরা সেখান থেকে চলে যান।

গণতন্ত্র মঞ্চ রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন জেএসডি রংপুর জেলা শাখার সভাপতি আমিন উদ্দিন, জেএসডির মহানগর কমিটির সদস্য এ বি এম মশিউর রহমান, আবদুস সাদেক জিহাদী, নাগরিক ঐক্যের রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক শাহ মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সদস্যসচিব মোফাকখারুল মুন, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের রংপুর জেলার সমন্বয়ক চিনু কবির, দপ্তর সমন্বয়ক কনক রহমান প্রমুখ।

Tag : Bangladesh Diplomat, bd diplomat

Please Share This Post in Your Social Media

Write Your Comment

About Author Information

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট | A Popular News Portal Of Bangladesh.

রংপুরে গণতন্ত্র মঞ্চের মিছিলে পুলিশের বাধা

No Update : ১২:০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ নভেম্বর ২০২৩

অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে রংপুরে গণতন্ত্র মঞ্চের মিছিলে লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল চারটায় শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমানকে পুলিশ আটক করলেও বিক্ষুব্ধ নেতা–কর্মীদের চাপের মুখে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গণতন্ত্র মঞ্চের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ অভিযোগ করা হয়।

গণতন্ত্র মঞ্চ ও প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে গণতন্ত্র মঞ্চের রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলটি রংপুর শহরের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে। মিছিলটি রংপুর শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এলে পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। একপর্যায়ে লাঠিপেটা করে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়। এ সময় দলটির তিনজন কর্মী আহত হন।

তবে কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহ আলম লাঠিপেটার কথা অস্বীকার করে বলেন, মিছিলে পুলিশ বাধা দেয়। এরপর মিছিলকারীরা সেখান থেকে চলে যান।

গণতন্ত্র মঞ্চ রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন জেএসডি রংপুর জেলা শাখার সভাপতি আমিন উদ্দিন, জেএসডির মহানগর কমিটির সদস্য এ বি এম মশিউর রহমান, আবদুস সাদেক জিহাদী, নাগরিক ঐক্যের রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক শাহ মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সদস্যসচিব মোফাকখারুল মুন, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের রংপুর জেলার সমন্বয়ক চিনু কবির, দপ্তর সমন্বয়ক কনক রহমান প্রমুখ।

অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে রংপুরে গণতন্ত্র মঞ্চের মিছিলে লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল চারটায় শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমানকে পুলিশ আটক করলেও বিক্ষুব্ধ নেতা–কর্মীদের চাপের মুখে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গণতন্ত্র মঞ্চের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ অভিযোগ করা হয়।

গণতন্ত্র মঞ্চ ও প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে গণতন্ত্র মঞ্চের রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলটি রংপুর শহরের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে। মিছিলটি রংপুর শহরের জীবন বীমা ভবনের সামনে এলে পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। একপর্যায়ে লাঠিপেটা করে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়। এ সময় দলটির তিনজন কর্মী আহত হন।

তবে কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহ আলম লাঠিপেটার কথা অস্বীকার করে বলেন, মিছিলে পুলিশ বাধা দেয়। এরপর মিছিলকারীরা সেখান থেকে চলে যান।

গণতন্ত্র মঞ্চ রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন জেএসডি রংপুর জেলা শাখার সভাপতি আমিন উদ্দিন, জেএসডির মহানগর কমিটির সদস্য এ বি এম মশিউর রহমান, আবদুস সাদেক জিহাদী, নাগরিক ঐক্যের রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক শাহ মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, গণসংহতি আন্দোলনের রংপুরের সমন্বয়ক তৌহিদুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সদস্যসচিব মোফাকখারুল মুন, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের রংপুর জেলার সমন্বয়ক চিনু কবির, দপ্তর সমন্বয়ক কনক রহমান প্রমুখ।