১২:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইংল্যান্ডের কোচ হওয়ার ভাবনা পছন্দ হচ্ছে না মরগানের

Reporter Name
  • No Update : ১০:৩৫:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩
  • / 1141

ম্যাথু মটকে সরিয়ে ইংল্যান্ডের সাদা বলের কোচ করা উচিত তাঁকে, এমন ভাবনাকে একটু ‘অকল্পনীয়’ বলে মন্তব্য করেছেন এউইন মরগান। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের পারফরম্যান্সের সমালোচনা করে মরগান বলেছিলেন, ড্রেসিংরুমে কোনো ঝামেলা না থেকে পারে না। আগামী বছর হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে মরগানকে কোচ করার কথাও উঠে আসে এরপর। তবে সে ভাবনা ঠিক পছন্দ হচ্ছে না মরগানের।

২০১৯ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মরগান এবারের বিশ্বকাপে কাজ করছেন ধারাভাষ্যকার হিসেবে। যদিও সন্তানের জন্মের কারণে টুর্নামেন্টের পুরোটা সময় ভারতে ছিলেন না। ফেরার পর ইংল্যান্ডের পারফরম্যান্সের কঠোর সমালোচনাই করেন সাবেক এই অধিনায়ক। ছয় ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতে হেরে এখন বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়ার অপেক্ষায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

ইংল্যান্ডের এখনকার কোচ মটের অধীন মরগানও অধিনায়কত্ব করেছেন। গত বছর মটের অধীনই অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে ইংল্যান্ড। তবে ড্রেসিংরুমে কোনো ঝামেলা আছে, মরগানের এমন মন্তব্য মেনে নেননি মট। লক্ষ্ণৌয়ে ভারতের কাছে হারের পর ‘দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ’–এর এক কলামে অবশ্য লেখা হয়, মটকে সরিয়ে মরগানকে কোচের দায়িত্ব দেওয়া উচিত।

আরও পড়ুন

বিশ্বকাপ শেষেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়বেন উইলি

তবে এমন ধারণা ঠিক পছন্দ হয়নি মরগানের। স্কাই স্পোর্টসকে মরগান বলেছেন, ‘সবাই আমার মন্তব্যের ব্যাখ্যা দাঁড় করাতে পারে। এ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের যে পারফরম্যান্স, তার কারণ হিসেবে আমি যা ভেবেছি, সেটিই পরিষ্কার করে বলেছি। ড্রেসিংরুমে থাকা অধিনায়ক বা কোনো খেলোয়াড়ই আসলে এ পরিস্থিতি কীভাবে তৈরি হলো, সেটি ব্যাখ্যা করতে পারবে না।’

ইংল্যান্ড কোচ ম্যাথু মট
ইংল্যান্ড কোচ ম্যাথু মটএএফপি

কিন্তু নিকট ভবিষ্যতে কোচিংয়ে আসার কোনো ইচ্ছা নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি, ‘ভবিষ্যতে যা করার আশা করছি, তাতে আমি খুশি এবং দৃঢ় সংকল্প। এখন ঘরে অনেক সময় কাটাই, ছোট সন্তানদের সঙ্গে। যেটি দারুণ।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে কোচ ও অধিনায়ক বদলানো উচিত নয় বলেও মনে করেন ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেলার ধরনে বিপ্লব আনা মরগান, ‘বিশ্বকাপ যেভাবে আসে-যায়, তাতে এই মুহূর্তে অধিনায়ক ও কোচ বদলানোর আলোচনা ভালো মনে করি না আমি। তারা দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এমনি এমনি না। তারা কোনোভাবেই খারাপ কোনো দল না।’ মটকে সময় দেওয়া উচিত বলেও মনে করেন মরগান, ‘ইংল্যান্ডের কোচিং ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে ম্যাথু মট। আর এটি ঠিক করার জন্য ক্যারিবীয় ও যুক্তরাষ্ট্রে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে অবশ্যই তাকে সময় দেওয়া উচিত।’

আরও পড়ুন
Tag : Bangladesh Diplomat, bd diplomat

Please Share This Post in Your Social Media

Write Your Comment

About Author Information

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট | A Popular News Portal Of Bangladesh.

ইংল্যান্ডের কোচ হওয়ার ভাবনা পছন্দ হচ্ছে না মরগানের

No Update : ১০:৩৫:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩

ম্যাথু মটকে সরিয়ে ইংল্যান্ডের সাদা বলের কোচ করা উচিত তাঁকে, এমন ভাবনাকে একটু ‘অকল্পনীয়’ বলে মন্তব্য করেছেন এউইন মরগান। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের পারফরম্যান্সের সমালোচনা করে মরগান বলেছিলেন, ড্রেসিংরুমে কোনো ঝামেলা না থেকে পারে না। আগামী বছর হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে মরগানকে কোচ করার কথাও উঠে আসে এরপর। তবে সে ভাবনা ঠিক পছন্দ হচ্ছে না মরগানের।

২০১৯ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মরগান এবারের বিশ্বকাপে কাজ করছেন ধারাভাষ্যকার হিসেবে। যদিও সন্তানের জন্মের কারণে টুর্নামেন্টের পুরোটা সময় ভারতে ছিলেন না। ফেরার পর ইংল্যান্ডের পারফরম্যান্সের কঠোর সমালোচনাই করেন সাবেক এই অধিনায়ক। ছয় ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতে হেরে এখন বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়ার অপেক্ষায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

ইংল্যান্ডের এখনকার কোচ মটের অধীন মরগানও অধিনায়কত্ব করেছেন। গত বছর মটের অধীনই অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে ইংল্যান্ড। তবে ড্রেসিংরুমে কোনো ঝামেলা আছে, মরগানের এমন মন্তব্য মেনে নেননি মট। লক্ষ্ণৌয়ে ভারতের কাছে হারের পর ‘দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ’–এর এক কলামে অবশ্য লেখা হয়, মটকে সরিয়ে মরগানকে কোচের দায়িত্ব দেওয়া উচিত।

আরও পড়ুন

বিশ্বকাপ শেষেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়বেন উইলি

তবে এমন ধারণা ঠিক পছন্দ হয়নি মরগানের। স্কাই স্পোর্টসকে মরগান বলেছেন, ‘সবাই আমার মন্তব্যের ব্যাখ্যা দাঁড় করাতে পারে। এ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের যে পারফরম্যান্স, তার কারণ হিসেবে আমি যা ভেবেছি, সেটিই পরিষ্কার করে বলেছি। ড্রেসিংরুমে থাকা অধিনায়ক বা কোনো খেলোয়াড়ই আসলে এ পরিস্থিতি কীভাবে তৈরি হলো, সেটি ব্যাখ্যা করতে পারবে না।’

ইংল্যান্ড কোচ ম্যাথু মট
ইংল্যান্ড কোচ ম্যাথু মটএএফপি

কিন্তু নিকট ভবিষ্যতে কোচিংয়ে আসার কোনো ইচ্ছা নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি, ‘ভবিষ্যতে যা করার আশা করছি, তাতে আমি খুশি এবং দৃঢ় সংকল্প। এখন ঘরে অনেক সময় কাটাই, ছোট সন্তানদের সঙ্গে। যেটি দারুণ।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে কোচ ও অধিনায়ক বদলানো উচিত নয় বলেও মনে করেন ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেলার ধরনে বিপ্লব আনা মরগান, ‘বিশ্বকাপ যেভাবে আসে-যায়, তাতে এই মুহূর্তে অধিনায়ক ও কোচ বদলানোর আলোচনা ভালো মনে করি না আমি। তারা দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এমনি এমনি না। তারা কোনোভাবেই খারাপ কোনো দল না।’ মটকে সময় দেওয়া উচিত বলেও মনে করেন মরগান, ‘ইংল্যান্ডের কোচিং ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে ম্যাথু মট। আর এটি ঠিক করার জন্য ক্যারিবীয় ও যুক্তরাষ্ট্রে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে অবশ্যই তাকে সময় দেওয়া উচিত।’

আরও পড়ুন