০৪:১২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মা-বাবা ও মেয়েকে গলা কেটে হত্যা

Reporter Name
  • No Update : ১০:১০:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৪
  • / 940

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে মা-বাবা ও মেয়েকে গলা কেটে হত্যা

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে একই পরিবারের তিনজনকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) জেলার তাড়াশ পৌর এলাকার বাড়োয়ারি বটতলা এলাকায় নিহতদের নিজ বাড়ি থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন তাড়াশ পৌর এলাকার কালিচরণ সরকারের ছোট ছেলে বিকাশ দাস (৪৫), তার স্ত্রী স্বর্ণা দাস (৪০) ও তাদের মেয়ে তাড়াশ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী তুষি দাস (১৫)।

তাড়াশ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) নুর আলম বলেন, সিরাজগঞ্জের তাড়াশ পৌরসভা এলাকার বারোয়ারী বটতলা মহল্লায় বিকাশ দাসের বাড়িটি রোববার থেকে তালাবদ্ধ ছিল। কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না বিকাশ, তার স্ত্রী ও তার মেয়ে তুষির। তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনগুলোও বন্ধ ছিল। সন্দেহ হলে পুলিশকে জানায় স্বজনরা। গভীর রাতে রুমের তালাভেঙে প্রবেশ করে তাদের গলাকাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পরিকল্পিতভাবে হত্যাকাণ্ডটি ঘটানো হয়েছে। নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সদস্যরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Write Your Comment

About Author Information

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট | A Popular News Portal Of Bangladesh.

মা-বাবা ও মেয়েকে গলা কেটে হত্যা

No Update : ১০:১০:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৪

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে একই পরিবারের তিনজনকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) জেলার তাড়াশ পৌর এলাকার বাড়োয়ারি বটতলা এলাকায় নিহতদের নিজ বাড়ি থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন তাড়াশ পৌর এলাকার কালিচরণ সরকারের ছোট ছেলে বিকাশ দাস (৪৫), তার স্ত্রী স্বর্ণা দাস (৪০) ও তাদের মেয়ে তাড়াশ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী তুষি দাস (১৫)।

তাড়াশ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) নুর আলম বলেন, সিরাজগঞ্জের তাড়াশ পৌরসভা এলাকার বারোয়ারী বটতলা মহল্লায় বিকাশ দাসের বাড়িটি রোববার থেকে তালাবদ্ধ ছিল। কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না বিকাশ, তার স্ত্রী ও তার মেয়ে তুষির। তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনগুলোও বন্ধ ছিল। সন্দেহ হলে পুলিশকে জানায় স্বজনরা। গভীর রাতে রুমের তালাভেঙে প্রবেশ করে তাদের গলাকাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পরিকল্পিতভাবে হত্যাকাণ্ডটি ঘটানো হয়েছে। নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সদস্যরা।