০৩:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজধানীতে বড় ৫ দল ও সংগঠনের কর্মসূচি ঘোষণা

Reporter Name
  • No Update : ১২:৫৮:৪৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪
  • / 983

সংগৃহীত ছবি

আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, ইসলামী আন্দোলন এই চার রাজনৈতিক দল এবং ও হেফাজতে ইসলাম হটাৎ করেই কিছু সময়ের ব্যবধানে রাজপথে কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে। রাজনীতিতে টান টান উত্তেজনার মধ্যেই অনুষ্ঠিত হয়েছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এরপর কিছুদিন বিরতি দিয়ে ফের শুরু হল রাজনীতির মাঠে উত্তাপ।

আগামী ৩০ জানুয়ারি রাজপথে নামার ঘোষণা দিয়েছে মাঠের রাজনীতির প্রধান বিরোধীশক্তি বিএনপি। তাদের এই ঘোষণার পরপর একইদিনে পাল্টা কর্মসূচি দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এরপর একে একে মাঠের কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে জামায়াতে ইসলামী, চরমোনাই পীরের ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এবং হেফাজতে ইসলাম।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে ‘অবৈধ ও ডামি’ আখ্যা দিয়ে তা বাতিল, নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবি এবং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ৩০ জানুয়ারি দেশের সব মহানগর, জেলা, উপজেলা, থানা ও পৌরসভায় কালো পতাকা মিছিল করবে বিএনপি। শনিবার এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

অন্যদিকে পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণায় আওয়ামী লীগ জানিয়েছে, ৩০ জানুয়ারি সারা দেশে শান্তি, গণতন্ত্র ও উন্নয়ন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন লাল-সবুজ পতাকা হাতে গণতন্ত্র, শান্তি ও উন্নয়ন কীভাবে হবে, সেই কথা বলা হবে। সারা দেশে পাহারায় থাকবে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

এদিকে, ২৮ জানুয়ারি বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি দিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। দলটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা এটিএম মাছুম বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণ, গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংকট দূরীকরণে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ এবং প্রহসনের ডামি নির্বাচন বাতিল করে কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার দাবিতে দেশের সব মহানগরে বিক্ষোভ মিছিল করবেন জামায়াতের নেতাকর্মীরা।

একতরফা প্রহসনের নির্বাচন বাতিল, বিতর্কিত শিক্ষাকারিকুলাম পরিবর্তন এবং ট্রান্সজেন্ডারকে প্রমোট করার প্রতিবাদে দুই দিনের কর্সমসূচি ঘোষণা করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। দলটির আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম জানান, ৩১ জানুয়ারি সারা দেশে বিক্ষোভ এবং ৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, জাতীয় শিক্ষা কারিকুলামে ইসলামের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বিষয়াদি এবং ট্রান্সজেন্ডার ইস্যুতে কর্মসূচি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম। আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় শিক্ষাবিদ, বুদ্ধিজীবী এবং শীর্ষ ওলামা মাশায়েখদের নিয়ে জাতীয় শিক্ষা সেমিনার আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনটি।

Please Share This Post in Your Social Media

Write Your Comment

About Author Information

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট

Bangladesh Diplomat | বাংলাদেশ ডিপ্লোম্যাট | A Popular News Portal Of Bangladesh.

রাজধানীতে বড় ৫ দল ও সংগঠনের কর্মসূচি ঘোষণা

No Update : ১২:৫৮:৪৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪

আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, ইসলামী আন্দোলন এই চার রাজনৈতিক দল এবং ও হেফাজতে ইসলাম হটাৎ করেই কিছু সময়ের ব্যবধানে রাজপথে কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে। রাজনীতিতে টান টান উত্তেজনার মধ্যেই অনুষ্ঠিত হয়েছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এরপর কিছুদিন বিরতি দিয়ে ফের শুরু হল রাজনীতির মাঠে উত্তাপ।

আগামী ৩০ জানুয়ারি রাজপথে নামার ঘোষণা দিয়েছে মাঠের রাজনীতির প্রধান বিরোধীশক্তি বিএনপি। তাদের এই ঘোষণার পরপর একইদিনে পাল্টা কর্মসূচি দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এরপর একে একে মাঠের কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে জামায়াতে ইসলামী, চরমোনাই পীরের ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এবং হেফাজতে ইসলাম।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে ‘অবৈধ ও ডামি’ আখ্যা দিয়ে তা বাতিল, নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবি এবং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ৩০ জানুয়ারি দেশের সব মহানগর, জেলা, উপজেলা, থানা ও পৌরসভায় কালো পতাকা মিছিল করবে বিএনপি। শনিবার এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

অন্যদিকে পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণায় আওয়ামী লীগ জানিয়েছে, ৩০ জানুয়ারি সারা দেশে শান্তি, গণতন্ত্র ও উন্নয়ন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন লাল-সবুজ পতাকা হাতে গণতন্ত্র, শান্তি ও উন্নয়ন কীভাবে হবে, সেই কথা বলা হবে। সারা দেশে পাহারায় থাকবে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

এদিকে, ২৮ জানুয়ারি বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি দিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। দলটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা এটিএম মাছুম বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণ, গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংকট দূরীকরণে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ এবং প্রহসনের ডামি নির্বাচন বাতিল করে কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার দাবিতে দেশের সব মহানগরে বিক্ষোভ মিছিল করবেন জামায়াতের নেতাকর্মীরা।

একতরফা প্রহসনের নির্বাচন বাতিল, বিতর্কিত শিক্ষাকারিকুলাম পরিবর্তন এবং ট্রান্সজেন্ডারকে প্রমোট করার প্রতিবাদে দুই দিনের কর্সমসূচি ঘোষণা করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। দলটির আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম জানান, ৩১ জানুয়ারি সারা দেশে বিক্ষোভ এবং ৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, জাতীয় শিক্ষা কারিকুলামে ইসলামের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বিষয়াদি এবং ট্রান্সজেন্ডার ইস্যুতে কর্মসূচি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম। আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় শিক্ষাবিদ, বুদ্ধিজীবী এবং শীর্ষ ওলামা মাশায়েখদের নিয়ে জাতীয় শিক্ষা সেমিনার আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনটি।